Author: নাজিম উদ্দিন

বাংলাদেশে আমি কেন ‘উন্নয়ন’ দেখি না? 

গত কয়েক বছর  অনেকেই আমাকে বলেছেন, “আপনি ভাই দেশে থাকেন না, জানেন না দেশে কি পরিমাণ উন্নয়ন হইছে”। এবার যখন দেশ থেকে ঘুরে এলাম তখন সবাইকে স্বচক্ষে, সরেজমিনে দেখা  “উন্নয়ন” এর ফিরিস্তি  জানানোর একটা তাগিদ বোধ করছি। গত দশ-পনের বছরে দেশের রাজনীতি, গণতন্ত্র, সমাজ-ব্যবস্থা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনীতির বারোটা বাজিয়ে দিয়ে যে ‘উন্নয়ন’ হয়েছে এর মত … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

করোনাপূর্ব পরিবেশ বিপর্যয় এবং করোনা পরবর্তীকালে আমাদের করণীয়

করোনাপূর্ব বিশ্বের পরিবেশ পরিস্থিতি আলোচনা করতে গেলে আমরা দেখতে পাব সারা বিশ্বে একটা পরিবেশ বিপর্যয় নেমে আসতেছিল। আমাজন থেকে সুন্দরবন দখলদারদের খপ্পরে পড়ে বিলীণ হবার মুখোমুখি, বন ধ্বংসকারি প্রকল্প, লগিং, কৃষি, মাইনিং এসবের কারণে বন উজাড় হয়ে যাচ্ছে। এদিকে সারা বিশ্বের পরিবেশ বিজ্ঞানী এবং আইপিসিসিআর এর কর্মকর্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে যাচ্ছেন একুশ শতকে গ্লোবাল তাপমাত্রা … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

আফ্রিকান আমেরিকানদের সংগ্রাম ও বাঙালির ‘কালো’ সমস্যা।

দেশে-বিদেশে বসবাসকারী বাঙালিদের মধ্যে আফ্রিকানদের নিয়ে সমস্যা আছে। বাঙালি নিজেকে কালো ভাবতে চায় না, কালোদেরকেও শুধু কালো বা আফ্রিকান নয়, কাউল্লা, কাইল্লা, পাতিলের তলা ইত্যাকার অসংস্কৃত ভাষায় সম্বোধন করে।  ভি এস নাইপল যেমন বলে গেছেন, “ব্ল্যাক জীন্স আর রিসেসিভ” – ভি এস নাইপল সময়ের প্রভাবে কালো জীন তাদের বিশেষত্ব হারিয়ে ফেলে,  শাদার পরশে ধীরে ধীরে … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

বাংলার বেদ বিরোধীতা

বাংলা প্রবলভাবে বেদ বিরোধী। শোনা যায় বৈদিক আগ্রাসন বাংলায় করতোয়া নদ পর্যন্ত এসে ঠেকেছিল, সমগ্র বাংলায় প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি। মহাভারতের পাণ্ডবেরা অজ্ঞাতবাসের সময়, বিরাট রাজার আশ্রয়ে আত্মগোপনের সময় হয়ত আমাদের রংপুর এলাকায় ছিল। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে এখনো বিরাট নগরীর ধ্বংসাবশেষ আছে, যেটা স্থানীয়ভাবে বিরাট রাজার ঢিবি নামে পরিচিত। কবি আল মাহমুদের ভাষায়ঃ “আমারও আবাস জেনো … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৯ম পর্ব)

অধ্যায় ১২ আইনি সংস্কার (প্রথম অংশ) আমাদের দেশের প্রেক্ষিতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যে জিনিসগুলো করা উচিত তার অন্যতম হল বিচারের গুনগত মানের উন্নয়ন, যা কিনা মানুষের অস্তিত্ব ও সমাজের উন্নতির মৌল উপাদানগুলোর একটি। এটি পৃথিবীর যে কোনো সমাজ ব্যবস্থার মৌলিক লক্ষ্যগুলোর একটি। জাতি হিসেবে আমরা বিচারের অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছি সেই ঔপনিবেশিক শাসনের সময় থেকে, দেশভাগ … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৮ম পর্ব)

অধ্যায় ১০ বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি পদে নিয়োগ বিচারপতি মোঃ মোজাম্মেল হোসেন এর অবসরে যাবার তিন মাস আগে থেকে পরবর্তী প্রধান বিচারপতি নিয়োগ নিয়ে অনেক কানাঘুষা চলছিল। শামসুদ্দিন চৌধুরী পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হবার জন্য জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন, এছাড়া সম্ভাব্য প্রধান বিচারকের পদে দেশের মুন্সেফ আদালতের প্রথম নারী জজ, জেলা জজ, হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগের বিচারক … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৭ম পর্ব)

অধ্যায় ৮ দাতব্য কাজ বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আপীল আবেদন নিষ্পত্তি করার পর আমি দ্বিতীয়বার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার জন্য নিউইয়র্কে এসেছিলাম। যার ফলে আমি নিশ্চিত হয়েছিলাম যে সিঙ্গাপুরে আমার চিকিৎসা সঠিক ছিল। সিঙ্গাপুর থেকে আমাকে আরো বলা হয়েছিল যে আমার সিঙ্গাপুর ব্যতীত অন্য কোথাও কোন ক্যান্সার বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেয়ার প্রয়োজন নেই।  একটা জীবনঘাতী রোগের দুশ্চিন্তা থেকে … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৬ষ্ঠ পর্ব)

অধ্যায় সাত বিচার বিভাগীয় সার্ভিস কমিশন   মোঃ মোজাম্মেল হোসেন  আমার জ্যেষ্ঠ হওয়া সত্ত্বেও আমি বিচার বিভাগীয় কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ পেলাম। বিচার বিভাগীয় প্রশিক্ষণ কার্যালয়ের কিছু রুম নিয়ে বিচার বিভাগীয় কর্ম কমিশনের কাজ শুরু হয়। সেখানে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বসার জন্য জায়গার খুব সংকট ছিল। তাই কমিশনের কর্মকর্তাদের বসার স্থান সংকুলানের জন্য দেরী … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৫ম পর্ব)

অধ্যায় ছয়  ফজলুল করিম এর প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্তি তৎকালীন প্রধান বিচারপতি এম এম রুহুল আমিনের অবসর নেবার নির্ধারিত সময় ছিল ২২ শে ডিসেম্বর, ২০০৯। তিনি জ্যেষ্ঠতার ক্রমে বিচারপতি মোঃ. তোফাজ্জল ইসলাম ও মোঃ. ফজলুল করিমকে ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন। মোঃ. তোফাজ্জল ইসলাম ১৭ তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে ২০০৯ সালের ২৩ ডিসেম্বর শপথ গ্রহণ করেন এবং ২৭ … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]

A Broken Dream সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (৪র্থ পর্ব)

অধ্যায় ৩ বিচারক পদে উত্তরণ সে সময় একজন আইনজীবী  ৫০ বছরের বেশি বয়স হলে তাকে বিচারকের পদের জন্য বিবেচনা করা হত, যদিও সংবিধানে মাত্র ১০ বছরের আইন পেশায় নিয়োজিত থাকার বিধান আছে।  আমার বয়স যখন চল্লিশের কোঠায় ছিল তখন আমাকে পর পর দু’বার বিচারকের পদের জন্য মনোনয়ন দেয় হয় কিন্তু বয়সের কারনে আমার নাম বাদ … [ সম্পূর্ণ পোস্ট পড়ুন ]