মন ভালো নেই। কেন নেই, তা বোঝাও খুব কঠিন নয়। একটা বিশেষ বয়সে চশমার রং যখন থাকে রঙিন, তখন হৃদযন্ত্রের গতি অনেক কারনেই অনিয়মিত হতে পারে। যুদ্ধ করছি নিজের সাথে। এই রনক্ষেত্রে আমি একা, আমার স্বভাবটাও এমন নয় যে সৈন্য সামন্ত নিয়ে যুদ্ধে যাব। আমি ওয়ান ম্যান আর্মি। হারজিত সব নিজের।

আমার খুব প্রিয় শায়রী। কিছু শায়রী নিয়ে বসলাম, কিছু নিজের মনের অবস্থা প্রকাশ করছে, আর বাকীটা স্রেফ শায়রীর প্রতি মুগ্ধতা।
কুছ তো তনহাই কি রাতোঁমে সাহারা হোতা
তুম না হোতা সহি জিকর তুমহারা হোতা।
ও আগর আ না সকে মউতহি আয়ে হোতি
হিজরোমে কোই তো গমখার হামারা হোতা।
আমার নির্জন রাত্রে তুমি যদি নাও থাকো অন্ততঃ তোমার কথাও যদি আলোচনা হতো তবুও আমার বিরহের ব্যথা অনেক কম হতো। তুমি যদি না এলে তবু মৃত্যু এলো না কেন? মৃত্যুই হতো আমার বিরহরাতের দুঃখের সাথী, আমার বেদনার সাথী।
আঁসু আখোঁসে রোয়া ঔর জিগর জ্বলতা হ্যায়
কেয়া কয়ামৎ হ্যায় কি বরসাৎমে ঘর জ্বলতা হ্যায়।
চোখ থেকে অঝোরে জল ঝরে যাচ্ছে অথচ হৃদয় জ্বলেপুড়ে খাক হয়ে যাচ্ছে। কি আশ্চর্য, যেন প্রবল বর্ষনমূখর শ্রাবণধারায় ঘরটা জ্বলে ছাই হয়ে গেল।
সাহিলকা তলবগার এ পহেলেই সমঝলে
দরিয়াই মোহব্বৎকে কিনারা নেহি হোতা।
তীরের জন্য যাদের প্রাণ আনচান করে তাদের আগে থেকেই সাবধান করে দেই। প্রেমের সাগরে নামার আগে জেনে নেওয়া ভাল,  এ সাগর কুলহীন।
নিগাহে জিনকি নেহি হ্যায় উভরতে সূরযপর
উও ডুবতে হুয়ে তারোঁ কি বাত করতে হ্যায়।
উদীয়মান সূর্যের দিকে যার চোখ নেই, সেই ডুবন্ত তারার কথা বলে থাকে।
শেষের দুটি শায়রী খয়াল কানপুরী এর লেখা। এখন আমার প্রিয় একটা গান শোনা যাক অমর প্রেম থেকে,
[[{“type”:”media”,”view_mode”:”media_large”,”fid”:”88″,”attributes”:{“alt”:””,”class”:”media-image”,”typeof”:”foaf:Image”}}]]

 

0 Shares

রুশদী এর ব্লগ   ১৭৫ বার পঠিত