রত্নদীপা দে ঘোষ

করো আমাকে , মহামান্য আদালত হে

প্রতিটি অন্ন প্রতি ক্ষুদের দেবতা
শিসধান আমার বুনো জামফুল কীট পতঙ্গ
বীজপত্র আমার শুশুনিয়া রোম 
বকুল বেতবন শরবন করো তুমি
শরীর ভর্তি মুনির বেদব্যাস।

ভুলে যাও ঝঞ্ঝা তাণ্ডব মহামারী গৃহযুদ্ধ
ভুলে যাও প্রথম ধর্ষণের চর্ব –চোষ্য।

কোনদিন নিশ্চয়ই কোনো সৎস্বপ্ন
লিখবে তোমার বিশ্বস্ত ড্রাগন
সেই আশায় আমি দু ‘পা ফাঁক কোরে
সেই আশায় আমি কোমর সামান্য উঁচুতে
বহুযত্নে খুলে দিলাম অভিজাত বুক
বকফুল সুরভিত সামুরাই।

ধর্ষণ ভুলে যাও , করো আমাকে খুশি –খুশি।

তোমার কৃপাণ ভুখা আছে বহুদিন
তোমার হাতদুটি অদীক্ষিত আছে বহুকাল
তুমি কেবলি খুঁজে বেড়াচ্ছ ফোকরের ফাঁক
এসো , আমাকে করো আমাকে তোমার
দীক্ষিত পাঠক করো
করতে করতে তোমার কালো ড্রাগন
রোমাঞ্চের থাবায় মিলেমিশে
অক্ষয় … অমর হোক।

0 Shares